(ঢাবি) কবি সুফিয়া কামাল হলের ২০ ছাত্রীকে মধ্যরাতে হল ত্যাগে বাধ্য

কোটা সংস্কার আন্দোলন

রংপুর ক্রাইম নিউজ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কবি সুফিয়া কামাল হলের কোটা সংস্কার আন্দোলন সংশ্লিষ্ট কয়েকজন ছাত্রীকে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে হল ত্যাগে বাধ্য করার অভিযোগ উঠেছে হল প্রশাসনের বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার রাত ৮ টার পর থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত হল কর্তৃপক্ষ ছাত্রীদের একের পর এক বের করে দেয়। রাত ১টা পর্যন্ত অন্তত ২০ জন অভিভাবক সুফিয়া কামাল হল থেকে তাদের সন্তানকে এসে নিয়ে যান।

শিক্ষার্থীরা জানান, রাত ৮ টার পর হল প্রাধ্যক্ষ কোটা আন্দোলনে জড়িতদের ডেকে হল ছেড়ে দিতে বলেন। তাদের কারণে হলে সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে বলে জানান।

জানা গেছে, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী রিমির বাবা রাত সাড়ে ৮টায় ফোন পেয়েছেন হল কর্তৃপক্ষের। ঝড়-বৃষ্টির কথা বলে তিনি রক্ষা পাননি। কর্তৃপক্ষের নির্দেশ রাতেই মেয়েকে নিয়ে যেতে হবে বলে জানান । ফলে সাভারের ধামরাই থেকে রওনা হয়ে রাত পৌনে ১টায় হল গেটে পৌঁছান।

চতুর্থ বর্ষের এক ছাত্রী বলেন, সাধারণ শিক্ষার্থীরা যারা কোটা আন্দোলনে অংশ নিয়েছিল তাদের ফেসবুকে কোন কিছু লিখলে ও হলের কোন কিছু ভিডিও করলে বহিষ্কার করার কথা বলেছেন প্রাধ্যক্ষ ম্যাম।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড.আখতারুজ্জামান বলেন, আমি ঘটনাটা শুনেছি। প্রাধ্যক্ষকে এ বিষয়ে জিজ্ঞেস করব।

প্রসঙ্গত, এর আগে সুফিয়া কামাল হল কর্তৃপক্ষ ছাত্রী লাঞ্ছনাসহ ১১ এপ্রিল সংঘটিত ঘটনা তদন্তে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে। সেই কমিটি ছাত্রী লাঞ্ছনার অভিযোগ থেকে ছাত্রলীগ নেত্রী এশাকে অব্যাহতি দিয়ে উল্টো ২৬ ছাত্রীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করে।

সম্পর্কিত সংবাদ