সেনাবাহিনীকে যুদ্ধকালীন ক্ষমতা দিল শ্রীলঙ্কা

সেনাবাহিনীকে যুদ্ধকালীন ক্ষমতা দিল শ্রীলঙ্কা

এপ্রিল ২৩, ২০১৯ 0 By আরসিএন২৪বিডি.কম

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ইস্টার সানডের প্রার্থনার সময় শ্রীলঙ্কায় গির্জা ও হোটেলে সিরিজ বোমা হামলার ঘটনায় জড়িতদের আটক করতে দেশটির সেনাবাহিনীকে যুদ্ধকালীন ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। দেশটির প্রেসিডেন্টের দফতরের বরাত দিয়ে সংবাদ সংস্থা ‘এপি’ এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, এ ক্ষমতা দেওয়ায় সেনাবাহিনী এখন আদালতের অনুমতি ছাড়াই সন্দেহভাজন যে কাউকে আটক ও জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারবে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, সন্দেহভাজনদের আটক করতে দেশটির সেনাবাহিনীকে সর্বোচ্চ ক্ষমতাটি দেয়া হয়েছে। শ্রীলংকায় ২৬ বছর ধরে চলা গৃহযুদ্ধের সময় সামরিক বাহিনীকে এ ক্ষমতা দেয়া হয়েছিল। ২০০৯ সালে গৃহযুদ্ধ শেষ হলে সেনাবাহিনীর কাছ থেকে এ ক্ষমতা প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে।

শ্রীলঙ্কায় সিরিজ বোমা হামলার ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে এখন পর্যন্ত ২৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়ছে।

প্রসঙ্গত, রবিবার (২১ এপ্রিল) ছিলো যিশুর পুনরুত্থান দিবস বা ইস্টার সানডে। বিশেষ এই দিনটিতে শ্রীলঙ্কার তিনটি হোটেল ও গির্জায় চারটি বোমা হামলা হয়। পরের ২০ মিনিটে আরও দুটি বোমা হামলা হয়। বিকেলের দিকে চতুর্থ হোটেল ও একটি বাড়িতে বোমা হামলা হয়। ভয়াবহ এ হামলার ঘটনায় সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বেড়েই চলছে নিহতের সংখ্যা। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নিহত বেড়ে ৩১০ জনে দাঁড়িয়েছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি বলছে, হামলায় আহত হয়েছেন ৫০০ জন। নিহতদের মধ্যে ৩৬ জন বিদেশি রয়েছে বলেও জানায় বিবিসি। সংবাদমাধ্যমটি আরও জানায়, ভয়াবহ এই বোমা হামলার দায় স্বীকার করেছে জামাত আল-তাওহিদ আল-ওয়াতানিয়া নামের একটি জঙ্গিগোষ্ঠী।

আরসিএন ২৪ বিডি ডট কম , সময়: ১৭৫০ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৩,

 

আরো খবর পড়ুন

More News   

Related News