February 25, 2024
হঠাৎ করে কদর বেড়েছে ছাতার

হঠাৎ করে কদর বেড়েছে ছাতার

Read Time:2 Minute, 36 Second

ঢাকা সহ সারাদেশে দু-এক দিন পরপরই বৃষ্টি হচ্ছে। ঘূর্ণিঝড় অশনির প্রভাবেও বেলা-অবেলায় ঝরছে বৃষ্টি। ঝড়-বৃষ্টির দিনে ছাতার চাহিদা তুঙ্গে, বেড়েছে বিক্রি।

১০০ থেকে ৪০০ টাকার মধ্যেেই মিলছে ভালো মানের ছাতা। সহজে বহনযোগ্য, মান ও দামের কারণে ছোট ছাতার চাহিদা বেশি।

আজ শুক্রবার (১৩ মে) সরেজমিনে গুলিস্তান হল মার্কেট, বায়তুস সমির মার্কেট ও আল আমিন মার্কেট ঘুরে জানা গেছে, রহমান, শংকর, শরীফ, অ্যাটলাস ও মুন ব্র্যান্ডের ছাতার চাহিদা বর্তমানে সবচেয়ে বেশি। এদের মধ্যে চাহিদার শীর্ষে শংকর ছাতা।

এছাড়াও মদিনা, অলিম্পিক ও চেরিসহ নানান দেশি-বিদেশি ব্র্যান্ডের ছাতা পাওয়া যাচ্ছে। মে থেকে শুরু হয়ে আগস্ট পর্যন্ত ছাতার চাহিদা বেশি থাকে। চীন-থাইল্যান্ড থেকে কাপড় আনা হয়। পরে রাজধানীর চকবাজার ও ইমামগঞ্জে ছাতা তৈরি হয়। এছাড়াও চকবাজারে ছাতার ইমপোর্টার্স রয়েছে। সেখান থেকেই ছাতা সারাদেশে ছড়িয়ে পড়ে।

এছাড়াও সদরঘাটের বিভিন্ন মার্কেট ঘুরে জানা যায়, ছাতার বাজার এখন শংকর, মুন, শরীফ ও এটলাসের দখলে। বিদেশি ব্র্যান্ডের ছাতার চাহিদাও আছে।

দেশি ব্র্যান্ডের অ্যাটলাস ও শরীফ ছাতা টেকসই হলেও এখন শংকর ছাতা বেশি বিক্রি হচ্ছে। কেনা যাচ্ছে ১০০ থেকে ৪০০ টাকার মধ্যেই।

এক ভাঁজের ছাতার দাম ৩০০ টাকার মতো। আর দুই ভাঁজের ছাতাগুলো ২০০ থেকে ৪০০ টাকার মধ্যে বিক্রি হচ্ছে। দেশি যে ছাতাগুলো ভাঁজ ছাড়াই বন্ধ হবে সেগুলোর দাম ১৫০ থেকে ৩৫০ টাকার মধ্যে। বয়স্ক ও শিশুভেদে ছাতার দাম কমবেশি আছে। শিশুদের ছাতাগুলো ১০০ থেকে ২০০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে।

আরসিএন ২৪ বিডি / ১৩ মে ২০২২

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

Average Rating

5 Star
0%
4 Star
0%
3 Star
0%
2 Star
0%
1 Star
0%

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সাকিব করোনা নেগেটিভ হওয়ায় খেলতে পারবেন চট্টগ্রাম টেস্ট Previous post সাকিব করোনা নেগেটিভ হওয়ায় খেলতে পারবেন চট্টগ্রাম টেস্ট
চিরিরবন্দরে মাছ ধরতে গিয়ে বজ্রপাতে ১ জনের মৃত্যু Next post জমিতে কাজ করার সময় বজ্রপাতে ২ কৃষকের মৃত্যু