রংপুর সিও বাজারে বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১২ জন

রংপুর সিও বাজারে বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১২ জন

সেপ্টেম্বর ২, ২০১৮ 0 By admin

রংপুর সিও বাজার এলাকায় দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে শিশু-নারীসহ নিহতের সংখ্যা এখন ১২ জন । নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে, এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন আরও প্রায় ৩৫ জন।

রোববার (০২ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টা বেজে ১০ মিনিটে এ দুর্ঘটনা ঘটে আর এ ঘটনা তদন্তের জন্য তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন রংপুরের জেলা প্রশাসক। আগামী সাত কর্মদিবসের মধ্যে কমিটিকে তদন্ত প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে বলে জানা যায় ।

এছাড়াও দুর্ঘটনায় নিহত প্রত্যেক পরিবারকে ২০ হাজার করে টাকা অনুদান দেওয়া হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রোববার বেলা ১২টার দিকে সিও বাজার বিডিআর ক্যাম্পের বিপরীতে সালেহীন

ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের সামনে রংপুর-দিনাজপুর মহাসড়কের উপর অটোরিকশাকে ওভারটেক করতে গিয়ে বগুড়া থেকে ছেড়ে আসা পঞ্চগড়গামী বিআরটিসি বাসের (বগুড়া-ব-১১-০০২৬) সঙ্গে দিনাজপুর থেকে ছেড়ে আসা রংপুরগামী গেটলক বাসের (রংপুর-জ-০৪-০০২৫) মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই চারজন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও দুইজন নিহত হন। পরে আরো ৬ জন নিহত হয় , এই পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা ১২ জন ও দুই বাসের আরও প্রায় ৩৫ জন আহত হন।

নিহতরা হলেন- গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার তালুক বর্মন গ্রামের রুবেল হোসেনের স্ত্রী রোকসানা (২০), নীলফামারী জেলার সৈয়দপুরের বোতলাগাড়ী গ্রামের আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী অমিজন (৪৫), পঞ্চগড়ের শাহীন মিয়া (১২), ঠাকুরগাঁও জেলার ভুল্লী এলাকার মৃত ইব্রাহিম মিয়ার ছেলে আব্দুর রহমান (৭০), নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার বাহাগিলী ইউনিয়নের নয়নখাল গ্রামের মৃত শহিদুল ইসলামের স্ত্রী নুরবানু (৪৫) এবং রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার বালারহাট গ্রামের মামুন মিয়ার স্ত্রী সুমি আক্তার (২২)। এদের মধ্যে শাহীন ও সুমি চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে মারা যান। এ সময়ে ৬ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে।

খবর পেয়ে স্থানীয়দের সহেযাগিতায় পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আহতদের উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে ভর্তি করেন। আহতদের মধ্যে ১৫ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। তাদেরকে বিভিন্ন ওয়ার্ডে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে এ ঘটনায় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট রশিদুল মান্নাফ কবিরকে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্বিক) আবু মারুফ হোসেন ও স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক আবু রাফা মো. আরিফ।

আগামী সাত কর্মদিবসের মধ্যে কমিটিকে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে নিহতদের প্রত্যেক পরিবারকে ২০ হাজার করে টাকা অনুদান ও আহতদের চিকিৎসার বিষয়ে সহায়তা দেওয়া হচ্ছে।

|RCN24BD.COM| জাতীয় দুর্ঘটনা রংপুর সদর

রংপুর সিও বাজারে বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১২ জন

রংপুর মেডিকেলে কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক শাহীনুর রহমান রংপুর ক্রাইম নিউজ কে জানান, ৪টি ওয়ার্ডে আহতদের চিকিৎসা চলছে। এদের মধ্যে ১৫ জনের অবস্থা আশংকাজনক।

এ বিষয়ে রংপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এ সার্কেল) সাইফুর রহমান সাইফ বলেন, ঘটনার পর থেকে পুলিশ উদ্ধার অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে। আহতদের সুচিকিৎসায় সব ধরনের সহযোগিতা অব্যাহত রয়েছে। ঘাতক ড্রাইভার ও হেলপারকে আটকের চেষ্টা চলছে।

সোশ্যাল মিডিয়া :

এ ঘটনায় বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতে অনেকে স্টেটাস , পোস্ট দিয়ে সকল মানুষকে সহযোগিতা করতে বলা হচ্ছে , “এগিয়ে আসুন সবাই রংপুর মেডিকেলে ।অনেক রক্ত দরকার হতে পারে। আপনার শেয়ারে একজন মানুষ জীবন ফিরে পেতে পারেন।”
(আজ দুপুর 12:10pm দূর্ঘটনা হয়,শেয়ার করুন,সাহায্য করুন)

|RCN24BD.COM| জাতীয় দুর্ঘটনা রংপুর সদর

সোশ্যাল মিডিয়াতে অনেকে স্টেটাস , পোস্ট দিয়ে সকল মানুষকে সহযোগিতা করতে বলা হচ্ছে

এ ধরণের পোস্ট অনেকে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে করতে দেখা যায়। আর এ কারণে নিজে এসে রক্ত দান করেন আহতদের।