December 1, 2022
ঠাকুরগাঁওয়ে ঠান্ডাজনিত রোগে হাসপাতালে বৃদ্ধি পাচ্ছে শিশু রোগীর সংখ্যা

ঠাকুরগাঁওয়ে ঠান্ডাজনিত রোগে হাসপাতালে বৃদ্ধি পাচ্ছে শিশু রোগীর সংখ্যা

Read Time:3 Minute, 27 Second

শীত বাড়ার সাথে সাথে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ডায়রিয়া, নিউমোনিয়াসহ ঠান্ডাজনিত শিশু রোগীর সংখ্যা বেড়ে চলেছে।

বাড়তি রোগীর চাপ সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। প্রতিদিনই ৬০ থেকে ৭০ জন শিশু ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে। হাসপাতালে ভর্তি শিশু রোগীর বেশিরভাগই ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্ত।

গত ২৪ ঘণ্টায় ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়াসহ নানা রোগে ২৩৫ জন শিশু ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি রয়েছে। এর মধ্যে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রয়েছে ৬২ ও নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত্র ৩৫ জন ও অন্য শিশুরা ঠান্ডা জনিত রোগে আক্রান্ত ভর্তি রয়েছে।

এদিকে হাসপাতালে ৪৫ শয্যার বিপরীতে হঠাৎ কয়েকগুণ রোগী বৃদ্ধি পাওয়ায় শয্যা সংকটে রোগী ও স্বজনরা। রোগীর তুলনায় হাসপাতালে শয্যা অপ্রতুল্য।

একেকটি শয্যায় ৩-৪ জন করে শিশুকে রাখতে বাধ্য হচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এমনকি ওই শয্যাতে রোগীর মায়েরাও থাকছেন। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন দূর-দূরান্ত থেকে আসা রোগী ও স্বজনরা। অনেকটা বাধ্য হয়েই ওয়ার্ডের বারান্দা কিংবা মেঝেতে চিকিৎসা নিচ্ছেন তারা।

সদর উপজেলা বড় খোঁচাবাড়ি এলাকার রফিকুল ইসলাম জানান, তার শিশুর হঠাৎ করে বমি, সর্দি ও সাথে পাতলা পায়খানা শুরু হয়। এরপর শিশুকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন ও গত দুই দিন ধরে আছেন।

কিন্তু হাসপাতালে শিশু রোগীর সংখ্যা অনেক। তিনি শয্যা না পেয়ে অসুস্থ সন্তানকে নিয়ে মেঝেতে রয়েছেন। তার মতো আরো অনেকেই হাসপাতালের ফ্লোরে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

সালান্দর এলাকা থেকে ২ জন শিশুকে নিয়ে ভর্তি হয়েছেন মা সুলতানা বেগম। তিনি বলেন, মেয়েটার ঠান্ডায় বুকে কফ জমে গিয়েছিল তাই হাসপাতালে ভর্তি হই। পরে ছেলেটার পাতলা পায়খানা। দুই সন্তানকে নিয়ে এখন হাসপাতালে আমি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ ডাঃ আবু মোঃ রাজীব-উল-দোজা (তূর্য) জানান, ঠান্ডা বাড়ার কারণে হাসপাতালে শিশু রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে।

সকল রোগীদের সাধ্যমতো চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তবে এখন মা দের একটু সচেতন হতে হবে। বাচ্চাদের যেন ঠান্ডা না লাগে সেদিকে নজর রাখতে হবে।

আরসিএন ২৪ বিডি. কম / ২৩ নভেম্বর ২০২২

  • ১-১৫ ডিসেম্বর পুলিশের ‘বিশেষ অভিযান

    ১ থেকে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত বিশেষ অভিযান পরিচালনা করবে পুলিশ। সব ইউনিট প্রধান ও জেলার পুলিশ সুপারদের এ বিষয়ে নির্দেশনা দিয়েছে পুলিশ সদর দপ্তর।

    গত ২৯ নভেম্বর পুলিশ সদর দপ্তরের অপারেশন শাখার পাঠানো এক আদেশ অনুসারে, দেশের সব পুলিশ ইউনিটের প্রধান ও সব জেলার পুলিশ সুপারদের এ অভিযান চালাতে বলা হয়েছে।

    এ আদেশে বলা হয়েছে, ঢাকার আদালত থেকে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই জঙ্গি ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় সৃষ্ট পরিস্থিতিকে বিবেচনায় এই অভিযান পরিচালনা করা হবে।

    এছাড়া মহান বিজয় দিবস, বড়দিন এবং থার্টিফাস্ট নাইট উদযাপনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেও এই অভিযান পরিচালনা করা হবে।

    এই আদেশ অনুযায়ী আবাসিক হোটেল, মেস, হোস্টেল, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, কমিউনিটি সেন্টারসহ অপরাধীরা লুকিয়ে থাকতে পারে এমন স্থানে ১-১৫ ডিসেম্বর বিশেষ অভিযান করবে পুলিশ।

    এছাড়া অন্যান্য স্থানেও অভিযান পরিচালনা করবে পুলিশ। পরিচালিত অভিযানে জঙ্গি, সন্ত্রাসী, মাদকসেবী ও কারবারি, অবৈধ অস্ত্রধারী, ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি গ্রেপ্তার, মাদক ও অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করতে হবে।

    যদিও পুলিশ সদর দপ্তর বলছে এটি বিশেষ কোনো অভিযান নয়। সামনে আসন্ন কয়েকটি দিবসকে কেন্দ্র করে পুলিশের নিয়মমাফিক কার্যক্রম এটি।

    এ বিষয়ে পুলিশ সদর দপ্তরের মিডিয়া উইংয়ের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি) মঞ্জুর রহমান বলেন, বিশেষ কোনো অভিযান নয়, এটি পুলিশের রুটিন ওয়ার্ক।

    আসন্ন শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ও বিজয় দিবসসহ ডিসেম্বরের গুরুত্বপূর্ণ অনুষ্ঠানগুলোকে কেন্দ্র করে যাতে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

    আরসিএন ২৪ বিডি. কম / ১ ডিসেম্বর ২০২২

  • রংপুরে সিটি নির্বাচনে আ.লীগ-জাপাসহ ১০ প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ

    রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে ১০ প্রার্থীর দাখিল করা মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

    এদের মধ্যে আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টিসহ ৭ জন দলীয় এবং বাকি ৩ জন স্বতন্ত্র প্রার্থী।

    আজ বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে মনোনয়নপত্র বাছাই কার্যক্রম শেষে রসিক নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও নির্বাচন কমিশনের যুগ্ম সচিব আবদুল বাতেন এ ঘোষণা দেন।

    তিনি জানান, নির্বাচনে অংশ নিতে দাখিল করা মনোনয়নপত্র যথাযথভাবে পূরণ করা, হলফনামায় কোনো ত্রুটি না থাকা, মামলা সংক্রান্ত তথ্য, শিক্ষাগত যোগ্যতার সঠিক তথ্য প্রদানের পাশাপাশি দলীয় প্রত্যয়নপত্র নির্ভুল থাকায় মেয়র পদে ১০ জন প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

    মেয়র পদে মনোনয়নপত্রের বৈধতা পাওয়া প্রার্থীরা হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী অ্যাডভোকেট হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া, জাতীয় পার্টির মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমিরুজ্জামান পিয়াল, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদের শফিয়ার রহমান, খেলাফত মজলিশের তৌহিদুর রহমান মণ্ডল রাজু, জাকের পার্টির খোরশেদ আলম, বাংলাদেশ কংগ্রেসের আবু রায়হান, স্বতন্ত্র প্রার্থী মেহেদী হাসান বনি, লতিফুর রহমান মিলন ও আতাউর জামান বাবু।

    এর আগে মেয়র পদে ১৩ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করলেও গত মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিনে ৩ প্রার্থী মনোনয়ন জমা করেননি।

    এদের মধ্যে জাতীয় পার্টির বহিষ্কৃত সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক পৌর মেয়র একেএম আবদুর রউফ মানিক, জাতীয় শ্রমিক লীগের রংপুর মহানগরের সাধারণ সম্পাদক এম এ মজিদ এবং জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশের রংপুর মহানগরের সাবেক আমির অধ্যাপক মাহবুবার রহমান বেলাল।

    এদিকে আজ সকাল ৯ টা ৩০ মিনিটে রংপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে প্রার্থীদের জমা করা মনোনয়ন বাছাই কার্যক্রম শুরু হয়। এসময় মেয়র প্রার্থীসহ কাউন্সিলর প্রার্থী ও তাদের সমর্থকরা উপস্থিত ছিলেন।

    নির্বাচনে অংশ নিতে মেয়র পদে ১০ প্রার্থীসহ মোট ২৭৭ জন মনোনয়ন জমা দেন। এদের মধ্যে ১১টি সংরক্ষিত আসনের বিপরীতে ৬৯ জন কাউন্সিলর প্রার্থী এবং ৩৩ সাধারণ আসনের বিপরীতে ১৯৮ জন কাউন্সিলর প্রার্থী মনোনয়ন জমা করেছেন।

    মনোনয়নপত্র বাছাই কার্যক্রমে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও নির্বাচন কমিশনের যুগ্ম সচিব আবদুল বাতেন, আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা জিএম সাহাতাব উদ্দিন, সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ফরহাদ হোসেনসহ সংশ্লিষ্ট সহকারি রিটার্নিং কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

    আরসিএন ২৪ বিডি. কম / ১ ডিসেম্বর ২০২২

  • সরে দাঁড়ালেন মেক্সিকোর আর্জেন্টাইন কোচ

    টানা ৭ আসর পর বিশ্বকাপ ফুটবলের নকআউট পর্ব না খেলেই বিদায় নিল মেক্সিকো।

    গতকাল বুধবার (৩০ ডিসেম্বর ) সৌদি আরবের বিপক্ষে ম্যাচ জয়ের পরও কাতার বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেলো দলটি। তারপরই বিদায় নিলেন মেক্সিকোর আর্জেন্টাইন কোচ টাটা মার্টিনো।

    যদিও মেক্সিকোর ফুটবলারদের আক্ষেপ থাকতেই পারে। কেননা, পোল্যান্ডের সঙ্গে সমান ৪ পয়েন্ট থাকার পরও গোল ব্যবধানে পিছিয়ে থাকায় বাদ পড়ল তারা।

    নিজেদের শেষ ম্যাচে গতকাল সৌদি আরবকে ২-১ গোলে হারায় মেক্সিকো। তারপরও শেষ ষোলোতে উঠতে ব্যর্থ তারা। আর্জেন্টিনার কাছে হারের পরেও পোল্যান্ড সমান পয়েন্ট নিয়ে পৌছে গেছে নকআউটে।

    গতকাল ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে আসেন মেক্সিকোর কোচ টাটা মার্টিনো। গ্রুপ পর্ব পার হতে না পারার আক্ষেপ নিজের কাঁধে নিয়ে প্রধান কোচ মার্টিনো বললেন, ‘আমাদের এই ব্যর্থতা ও হতাশার জন্য প্রথমত আমি দায়ী।

    দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তি হিসেবে এটি আমাকে অনেক দুঃখ দিয়েছে, এই ব্যর্থতার জন্য আমি সম্পূর্ণ দায়ী। রেফারি শেষ বাঁশি বাজার সঙ্গে সঙ্গে আমার চুক্তি শেষ হয়ে গেছে এবং আর বেশি কিছু করার নেই।

    আরসিএন ২৪ বিডি. কম / ১ ডিসেম্বর ২০২২

  • দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা আজ তেঁতুলিয়ায়

    দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা সর্ব উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায়।

    আজ বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) সকাল ৯টায় তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল বুধবার রেকর্ড করা হয়েছিল ১২ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

    আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, পঞ্চগড়ে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হচ্ছে ১২-১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে। আর দিনের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকছে।

    এ সময়ের মধ্যে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকার কথা থাকলেও তাপমাত্রা রেকর্ড হচ্ছে ২৮-৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে। বুধবার বিকেল ৩টায় দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ২৯ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

    তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাসেল শাহ বলেন, আজ ভোর ৬টায় ১২ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড হলেও সকাল ৯টায় তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

    আরসিএন ২৪ বিডি. কম / ১ ডিসেম্বর ২০২২

  • রাজশাহী বিভাগে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট শুরু

    রাজশাহী বিভাগে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট শুরু হয়েছে।

    আজ বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) ভোর ৬টা থেকে এই ধর্মঘট শুরু হয়েছে।

    এর ফলে সড়ক পথে রাজশাহীর আট জেলার সাথে রাজধানী ঢাকাসহ গোটাদেশের পরিবহন যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। আর ধর্মঘটের প্রথম দিনেই অচল হয়ে পড়েছে রাজশাহী।

    ধর্মঘটের কারণে সব ধরনের বাস চলাচল বন্ধ থাকায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন ঢাকাসহ বিভিন্ন রুটের যাত্রীরা।

    যানবাহন না পেয়ে দূর-দূরান্তে নিজ নিজ গন্তব্যের উদ্দেশে রওয়ানা দিয়েও পথে পথে যাত্রীরা নানা হয়রানির শিকার হচ্ছেন।

    সকাল থেকে বিভিন্ন গন্তব্যে যাওয়ার উদ্দেশে মহানগরের শিরোইল, ভদ্রা ও রেলগেট বাস টার্মিনালে আসেন যাত্রীরা। কিন্তু বাস না পেয়ে কেউ বিকল্প যানবাহন কেউবা বাড়ি ফিরে যাচ্ছেন। অনেককে আবার রাজশাহী রেল স্টেশনে ভিড় করতে দেখা যাচ্ছে।

    ধর্মঘটের ফলে চাপ পড়েছে ট্রেনে। তাই বিভিন্ন রুটের ট্রেনের টিকিট এরই মধ্যে হাওয়া গেছে। টিকিট না পেয়ে অনেকে দাঁড়িয়েই রওয়ানা দিচ্ছেন।

    এছাড়াও পরিবহন ধর্মঘটের কারণে সকাল থেকেই ভোগান্তি পোহাচ্ছেন রাজশাহীর আন্তঃজেলা রুটের যাত্রীরাও। সিএনজি, হিউম্যান হলার, মাইক্রোবাসসহ বিভিন্ন বিকল্প যানবাহনে দ্বিগুণ ভাড়া দিয়ে যাত্রীরা জরুরি প্রয়োজনে নিজ গন্তব্যে রওয়ানা দিচ্ছেন।

    রাজশাহী বিভাগীয় সড়ক পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের ডাকে আজ অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট শুরু হলো।

    বুধবার (৩০ নভেম্বর) মধ্যে সড়কে অবৈধ যানবাহন চলাচল বন্ধসহ ১১ দফা দাবি বাস্তবায়ন না হওয়ায় এই অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটে যাবেন বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন তারা।

    আরসিএন ২৪ বিডি. কম / ১ ডিসেম্বর ২০২২

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %
আদিতমারীতে ট্রেনের ধাক্কায় ব্যবসায়ী নিহত Previous post আদিতমারীতে ট্রেনের ধাক্কায় ব্যবসায়ী নিহত
ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহ থেকে মেট্রোরেল চালু Next post ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহ থেকে মেট্রোরেল চালু