April 18, 2024
গাইবান্ধাতে স্বাধীনতা দিবস উদযাপন

জমি বিক্রির টাকা নিয়ে বিরোধ, মৃত্যুর দুইদিন পর দাফন

Read Time:4 Minute, 5 Second

মরদেহ আটক রেখে জমি বিক্রির ৬০ লক্ষ টাকার চেক হাতে পেয়ে মৃত্যুর দুইদিন পর নিঃসন্তান মোতাহার আলী মুন্সি (৭০) নামে একজন ব্যক্তির দাফন সম্পন্ন করল স্বজনরা। মৃত মোতাহার আলী মুন্সি গণপূর্তের বিভাগের সাবেক হেড ক্লার্ক।

গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলার বেতকাপা ইউনিয়নের সাকোয়া মাঝিপাড়া গ্রামে মরদেহ ফেলে রেখে দুইদিন ধরে চলে দফায়-দফায় বৈঠক। অবশেষে আর্থিক সমঝোতার পর নামাজে জানাজা শেষে রাত ১০টার দিকে পারিবারিক কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন করা হয়। মৃত মোতাহার আলী মুন্সি ওই এলাকার মৃত ছামসুল হক মুন্সির পুত্র।

ইউপি চেয়ারম্যান, মৃতের স্বজন ও স্থানীয়রা জানান, মোতাহার আলী মুন্সি ও তার স্ত্রী মোছাঃ মাসুমা বেগম নিঃসন্তান ছিলেন। মোছাঃ মারজিয়া আক্তার (১৫) নামে তাদের এক পালিত কন্যা রয়েছে। মোতাহার আলী গণপূর্তের চাকুরির সুবাদে ঢাকার কলাবাগান এলাকায় বসবাস করতেন। সেখানে দীর্ঘদিন আগে তিনি ৫৯ শতক জমি ক্রয় করেন। সম্প্রতি সে জমি ২ কোটি ১৮ লক্ষ টাকায় বিক্রি করেন তিনি।

এদিকে, মোতাহার আলীর দীর্ঘদিন ধরে এ্যাজমাসহ ক্যান্সারে আক্রান্ত ছিলেন। একপর্যায়ে বুধবার ভোর ৫টার দিকে রাজধানীর একটি হাসপাতালে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। ওইদিনই মৃতের স্ত্রী মোছাঃ মাসুমা বেগম, পালিত কন্যা মার্জিয়া আক্তার ও স্ত্রীর বড়ভাই নূরুল ইসলাম কাজী লাশ দাফনের জন্য মরদেহ নিয়ে সন্ধ্যার দিকে গ্রামের বাড়ি পলাশবাড়িতে পৌঁছেন। এরপর মৃতের চাচাতো ভাই-বোন, ভাতিজাদের সাথে শুরু হয় জমি বিক্রির টাকার ভাগ নিয়ে দ্বন্দ্ব।

এক পর্যায়ে স্ত্রী মোছাঃ মাসুমা বেগম ৬০ লক্ষ টাকার চেকসহ মুচলেকা লিখে দেওয়ার পর মরদেহ দাফন করা হয়।

মৃতের ছোট ভাই মোঃ নজরুল ইসলাম মুন্সি বলেন, তারা লাশ নিয়ে আসলেও সাথে চেক নিয়ে আসেনি। পরে ঢাকা থেকে চেক নিয়ে আসতে লাশ দাফনে বিলম্ব হয়েছে।

মৃতের জ্যঠাতো ভাই সেকেন্দার আলী মুন্সি ও ভাতিজা মানিক দাবি করেন, মোতাহার আলী মুন্সির এলাকায় কিছু পাওনা ছিল। এছাড়া তিনি জীবিত থাকতে এলাকায় মসজিদ-মাদ্রাসা করার জন্য টাকা প্রদাণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। সেসব বিষয়ে সিদ্ধান্তে পৌঁছতে লাশ দাফনে কিছুটা দেরি হয়েছে।

এদিকে, মৃতের স্ত্রী মোছাঃ মাসুমা বেগম বলেন, তার স্বামী মসজিদ-মাদ্রাসার জন্য ১৫ থেকে ২০ লক্ষ টাকা দানের অসিয়ত করে গেছেন।

ঘটনাস্থানে থেকে বেতকাপা ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তা এবং পলাশবাড়ী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মাহফুজ আলম মরদেহ দাফনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %
হিলিতে চারটি দোকানকে জরিমানা Previous post লাইসেন্স ছাড়া পশুখাদ্য ও ওষুধ বিক্রির অভিযোগে জরিমানা
সীমান্ত হত্যা বন্ধে লালমনিরহাটে প্রতীকী লাশের মিছিল Next post সীমান্ত হত্যা বন্ধে লালমনিরহাটে প্রতীকী লাশের মিছিল