February 24, 2024
বানবাসি মানুষের পাশে পুলিশ আছে, সবসময় থাকবে- বেনজীর আহমেদ

বানবাসি মানুষের পাশে পুলিশ আছে, সবসময় থাকবে- বেনজীর আহমেদ

Read Time:4 Minute, 20 Second

বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, মাত্র ১২ ঘণ্টায় সিলেট, সুনামগঞ্জসহ দেশের অনেক জেলায় লক্ষ লক্ষ মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছিল। তাদের পাশে থাকতে প্রধানমন্ত্রী নিজেই নির্দেশনা দিয়েছেন।

এই দুর্যোগ মোকাবেলা করতে পুলিশ সদস্যরা একত্রে হয়ে বানবাসি মানুষের পাশে ছিল, ভবিসৎতে তাদের পাশে থাকবে।

আজ বুধবার(২২জুন) লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় দেশের প্রথম পুলিশ ভিত্তিক বাংলাদেশ পুলিশ জাদুঘরের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দিতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল ড. বেনজীর আহমেদ বিপিএম (বার) বলেছেন, পৃথিবীতে অনেক দেশ আছে যাদের গর্ব করার মত কিছুই নেই। বাংলাদেশে গর্ব করার মত অনেক কিছুই রয়েছে।

আমরা বলতে পারি পদ্মাসেতু আমাদের সাহসিকতার একটি উদাহরণ। পৃথিবীর দ্বিতীয় খরস্রোতর নদী পদ্মার উপরে সেতু করা কাল্পনিক বিষয় ছিলো। যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাত ধরে বাস্তবায়ন হয়েছে। পদ্মাসেতু বিশ্বে ইতিহাস সৃষ্টি করেছে।

ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, পৃথিবীতে অনেক দেশ আছে যাদের গর্ব করার মত কিছুই নেই। বাংলাদেশে গর্ব করার মত অনেক কিছুই রয়েছে। আমরা বলতে পারি পদ্মাসেতু আমাদের সাহসীকতার একটি উদাহরণ। পৃথিবীর দ্বিতীয় খরস্রোতর নদী পদ্মার উপরে সেতু করা কাল্পনিক বিষয় ছিলো। যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাত ধরে বাস্তবায়ন হয়েছে। পদ্মাসেতু বিশ্বে ইতিহাস সৃষ্টি করেছে।

তিনি আরো বলেন, আমরা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশ, পতাকা ও জাতিস্বত্তা পেয়েছি। স্বাধীনতার ৫০ বছর পর ক্ষুধা দারিদ্রমুক্ত দেশ পেয়েছি। করোনা না আসলে এতদিনে ক্ষুধাকে জাদুঘরে রেখে দেয়া হতো।

স্বাধীনতা পরবর্তী বাংলাদেশকে দেখেছি চৈত্র মাস ভাত খাওয়ার কথা চিন্তাই করা যেত না। কচু-শাকপাতা খেয়ে দিন কাটাতো মানুষ, সেই বাংলাদেশ এখন আর নেই। আমরা খাদ্যে স্বয়ং-সম্পন্ন। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিলো ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ। যা আজ বাস্তবায়ন হয়েছে।

এর আগে পুলিশ প্রধান বাংলাদেশ পুলিশ জাদুঘরের ফলক উন্মোচন করে বাংলাদেশ পুলিশ জাদুঘর ও পুলিশ শিশু গ্যালারী পরিদর্শন করে হাতীবান্ধা থানা ভবনে একটি গাছের চারা রোপণ করেন।

এ সময় তিনি পুলিশ নারী ব্যারাক ও পুলিশ লায়ন্স স্কুল এন্ড কলেজের উদ্বোধন করেন। পরে দেশের বহুল আলোচিত দহগ্রাম-আঙ্গরপোতা পরিদর্শন শেষে পুলিশ কর্মকর্তাদের সাথে এক বিশেষ বৈঠক করে ঢাকায় চলে যান তিনি।

উক্ত অনুষ্ঠানে লালমনিরহাট পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পুলিশের রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য্য। অনুষ্ঠানে রংপুর বিভাগের ৮জেলার পুলিশ সুপারসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

আরসিএন ২৪ বিডি / ২২ জুন ২০২২

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

Average Rating

5 Star
0%
4 Star
0%
3 Star
0%
2 Star
0%
1 Star
0%

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

রংপুরে হত্যা মামলায় ৮ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড Previous post রংপুরে হত্যা মামলায় ৮ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড
ঈদের আগে ১০ দিন রাত ১০টা পর্যন্ত দোকানপাট খোলা Next post ঈদের আগে ১০ দিন রাত ১০টা পর্যন্ত দোকানপাট খোলা