July 16, 2024
লালমনিরহাটে খালেদা জিয়ার মুক্তি ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার দাবিতে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ

লালমনিরহাটে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামী বিরুদ্ধে

Read Time:4 Minute, 8 Second

লালমনিরহাট সদর উপজেলার গোকুন্ডা ইউনিয়নে শ্বাসরোধ ও নির্যাতন করে মোছাঃ মিতু আক্তার (২২) নামে এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামী মোঃ আতিকুল ইসলাম (২৫)র বিরুদ্ধে।

এই ঘটনায় স্বামী মোঃ আতিকুল ইসলামের নামে লালমনিরহাট সদর থানায় ১টি হত্যা মামলা দায়ের করেছে নিহত গৃহবধূর পিতা।

আজ শুক্রবার (২২ সেপ্টেম্বর) সকালে লালমনিরহাট সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ ওমর ফারুক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পাওয়ার পর ঘটনা স্থানে অফিসার পাঠিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। আজ শুক্রবার মরদেহের ময়না তদন্ত সম্পন্ন করে তার পরিবারের নিকট লাশ হস্তান্তর করা হবে।

নিহত মোছাঃ মিতু আক্তার কুড়িগ্রাম জেলার রাজারহাট উপজেলার ঘড়িয়ালডাঙ্গা খেতাবখা এলাকার মোহাম্মদ ইসলামের কন্যা এবং অভিযুক্ত স্বামী মোঃ আতিকুল ইসলাম লালমনিরহাট সদর উপজেলার গোকুন্ডা ইউনিয়নের দাড়ারপাড় মুন্সিটারী এলাকার মৃত হাবিবুর রহমান ওরফে হবিয়ার পুত্র।

অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, দুই বছর পূর্বে কুড়িগ্রাম জেলার রাজারহাট ঘড়িয়ালডাঙ্গা এলাকা মোহাম্মদ ইসলামের কন্যা মিতু আক্তারের সঙ্গে লালমনিরহাট সদর উপজেলার গোকুন্ডা ইউনিয়নের দাড়ারপাড় মুন্সিটারী এলাকার মৃত হাবিবুর রহমানের পুত্রের বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের সাংসারিক জীবন ভালই চলছিল। তাদের ঘরে ৫ মাসের আতিকা নামে ১টি কন্যা সন্তানও আছে। গত ১৫/২০ দিন আগে হঠাৎ করে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে ঝগড়া লাগে। এর পর স্বামী মোঃ আতিকুল ইসলাম তার সাথে আর সংসার করবেন না বাড়ি থেকে বাহির করে দেয়। পরে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তিরা আপোষ মিমাংসা করে দিলে তারা আবারও আগের মতোই সংসার করতে থাকে। গত বুধবার ২০ সেপ্টেম্বর রাতে আবারও তাদের স্বামী স্ত্রীর মধ্যে চেচামেচি ও মারামারির শব্দ শুনতে পায় এলাকাবাসী। কিন্তু ঘরের দড়জা বন্ধ থাকা এলাকাবাসী ভিতরে প্রবেশ করতে পারেননি। এর পরেরদিন গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে শিশু আতিকার অনেকক্ষণ কান্না শুনতে পেয়ে স্থানীয় লাভলু নামে এক ব্যাক্তিসহ এলাকাবাসী ঘরে প্রবেশ করতেই দেখতে পায় শিশুটি মেজেতে কান্না করছে আর তার মায়ের (মিতু আক্তার) লাশ বিছানায় পড়ে আছে।

পরবর্তীতে বিষয়টি দুপুরের দিকে থানা পুলিশকে জানালে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়। এই সময় শিশু আতিকাকে তার নানার হেফাজতে দেয়া হয়। ওইদিন রাতেই নিহত গৃহবধূ মিতুর বাবা আতিকুলকে আসামী করে লালমনিরহাট সদর থানায় ১টি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

লালমনিরহাট সদর থানায় অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ ওমর ফারুক জানান, অভিযোগ পর রাতেই মামলাটি নথিভুক্ত করা হয়েছে। আসামী পলাতক আছে তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা করছি আমরা।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %
হিলিতে ১৬ কোটি টাকার হেরোইন ও ইয়াবা জব্দ Previous post হিলিতে ১৬ কোটি টাকার হেরোইন ও ইয়াবা জব্দ
এবার রংপুরে যোগ দিলেন এডিসি হারুন Next post এবার রংপুরে যোগ দিলেন এডিসি হারুন