April 18, 2024
পঞ্চগড়ে নিষিদ্ধ পলিথিনে ভরে গেছে…

পঞ্চগড়ে নিষিদ্ধ পলিথিনে ভরে গেছে…

Read Time:4 Minute, 1 Second

উত্তরের পর্যটন সমৃদ্ধ জেলা পঞ্চগড়ে অনেকটাই বেড়েছে নিষিদ্ধ পলিথিনের ব্যবহার। শহর গ্রামগঞ্জের হাট-বাজারে হাতে হাতে পলিথিনে বাজার সদাই করছে স্থানীয় অধিবাসীরা।

অভিযোগ উঠেছে কিছু অসাধু পলিথিন ব্যবসায়ী সারা জেলায় ছড়িয়ে দিচ্ছে। এতে পরিবেশের পাশাপাশি স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়েছে সাধারণ মানুষ।

হাট-বাজারসহ শহরে বাজারমুখী প্রায় প্রত্যেক নাগরিকের হাতেই দেখা যাচ্ছে পলিথিনের এই ব্যাগ। সব ধরনের বাজার বহন করছে প্লাস্টিকের তৈরি ছোট-বড় ব্যাগে। দোকানদাররাও সবধরণের পণ্য বিক্রি করছেন পলিথিনের ব্যাগের মাধ্যমে।

সচেতন মহল ও পরিবেশবাদীরা বলছেন, একবার ব্যবহারের পর যেখানে সেখানেই ফেলে দেয়া হয় পলিথিন। পরিত্যক্ত এসব পলিথিন ভেঙে মাইক্রো প্লাস্টিকে পরিণত হচ্ছে। ওই মাইক্রো প্লাস্টিক মাটি ও পানিতে মিশে বিভিন্ন সবজি, ফল এবং প্রাণির শরীরে প্রবেশ করছে। তারপর প্লাস্টিকের বিভিন্ন ক্ষতিকর উপাদান খাবার ও বাতাসের মাধ্যমে ঢুকে পড়ছে মানবশরীরে। পলিথিনের কারণে কৃষি জমি হারিয়ে ফেলছে উর্বরতা। বিষাক্ত হয়ে উঠছে আমাদের পরিবেশ। ক্যান্সারসহ বিভিন্ন ধরনের জীবননাশক রোগে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ। চিকিৎসকরা বলছেন, নিষিদ্ধ পলিথিন ব্যবহারে সাধারণ মানুষ স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়েছে। বেড়েছে বিকলাঙ্গ শিশুর জন্মহারও।

পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের এনেস্থিসিয়া বিশেষজ্ঞ ডা. মনসুর আলম জানায়, পলিথিন ব্যবহারের জন্য যাবার কারণে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়েছে পঞ্চগড়ের কয়েক লাখ মানুষ। যেখানে সেখানে পলিথিন ফেলে দেয়া হয়। পৌরসভার ড্রেনগুলোতে পলিথিন ফেলার কারণে সেগুলো প্রায় এক রকম বন্ধ হয়ে গেছে। ফলে বর্ষাকালে সৃষ্টি হচ্ছে জলাবদ্ধতা। দূষিত পানির মাধ্যমে মইক্রোপ্লাস্টিক ছড়িয়ে পড়ছে জেলা শহরে।

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)’র পঞ্চগড় জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মোঃ আজহারুল ইসলাম জুয়েল বলেন, পলিথিনের ব্যবহার হঠাৎ বেড়ে গেছে। হাতে গোনা কিছু অসাধু কয়েকজন ব্যবসায়ী সারা জেলায় পলিথিন ছড়িয়ে দিচ্ছেন। তারা পৌর এলাকাসহ গ্রামের হাটবাজারে দোকানে দোকানে গিয়ে পলিথিন বিক্রি করে। প্রশাসন এবং পরিবেশ অধিদপ্তরের সামনেই তারা এই ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। এ ব্যপারে এই দুই সংস্থারও কার্যক্রম চোখে পড়ার মতো নয়। নিষিদ্ধ ওই পলিথিন ব্যাগের বিরুদ্ধে এখনই কার্যকর কোনো ব্যবস্থা নেওয়া না হলে ভবিষ্যতে পঞ্চগড়ের পরিবেশ বিপর্যয়ের মুখে পড়বে বলে মনে করেন তিনি।
পঞ্চগড় পরিবেশ অধিদপ্তরের উপপরিচালক ইউসুফ আলী জানান, আমরা ইতোমধ্যেই বেশ কিছু ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেছি। সচেতনতা সৃষ্টিতে কাজ চলছে।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %
গাইবান্ধায় ৪৬ জুয়াড়ি গ্রেফতার Previous post রংপুরে আইআরডিপির প্রতারণা, দুইজন গ্রেফতার
শনিবারের সাপ্তাহিক ছুটি বাতিল হতে যাচ্ছে Next post শনিবারের সাপ্তাহিক ছুটি বাতিল হতে যাচ্ছে