July 17, 2024
বেগম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের বৃক্ষরোপণ

বেগম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের বৃক্ষরোপণ

Read Time:2 Minute, 29 Second

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এবং নগরীর সার্কিট হাউজের সামনে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত এবং আজ শনিবার বিকেল পর্যন্ত বেশকিছু বিরল গাছ রোপণ ও সুরক্ষার কাজ করা হয়েছে।

বাংলা বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. তুহিন ওয়াদুদ, শিক্ষার্থী ছাওমুন পাটোয়ারী সুপ্ত এবং নাফিস উপস্থিত থেকে বৃক্ষ রোপণ এবং সুরক্ষার কাজ করেন। রাঙামাটি, যশোর ও ঢাকা হতে এনে এসব বৃক্ষ রোপণ করা হয়েছে।

দুলর্ভ বৃক্ষগুলোর মধ্যে রয়েছে-কাইনজল, মিনজিরি, জাতবাটনা, ম্যাকারাঙা, বরপাত্তা, ফিডলে উড ট্রি, বিলেতি হরিনা, জারুল, তেতুয়া কড়ই, বেরিয়া, মনকলা, শ্রীলংকান ছাতিম, হাড়গজা, ডেফল, লালসোনাইল, চালমুগড়া, উদাল, হাজারবেলি, কুম্ভি, আমঝুম, দেশি গাব, স্থলপদ্ম, সমুদ্রজবা, রাবার, মনিমালা, সাদা এবং গোলাপি কাঞ্চন। গাছগুলো রোপণ করার পর সুরক্ষার জন্য ঘিরে দেওয়া হয়েছে।

বৃক্ষরোপণ সম্পর্কে অধ্যাপক ড. তুহিন ওয়াদুদ বলেন, ‘গত এক যুগে আমরা বিভিন্ন জনের সাহায্যে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪ শতাধিক প্রজাতির প্রায় ৩৭,০০০ গাছ রোপণ করেছি। এ বছরও ৪ শতাধিক চারা রোপণ করা হয়েছে। নাগরিক দায়িত্ব থেকে শহরের সৌন্দর্য বৃদ্ধির লক্ষ্যে নগরীর বিভিন্ন জায়গায় সৌন্দর্যবর্ধক চারা রোপণ করছি। সম্পূর্ণ নগরীকে সুন্দর এবং সবুজ করে তোলা আমাদের লক্ষ্য।’

ছাওমুন পাটোয়ারী সুপ্ত বলেন, ‘শিক্ষার্থী হিসেবে দায়িত্ব পালন ছাড়াও সামাজিক কাজের দায়িত্ব হিসেবে বৃক্ষরোপণ কাজের সাথে আছি। এই কাজ আমাকে আনন্দ দেয়।’

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %
রংপুরে তিস্তায় পানিতে ৪ হাজার পরিবার পানিবন্দি Previous post রংপুরে তিস্তায় পানিতে ৪ হাজার পরিবার পানিবন্দি
পঞ্চগড়ে শাকিল হত্যার দায়ে একজন আহত Next post পঞ্চগড়ে শাকিল হত্যার দায়ে একজন আহত